কিডনির দাম কত । কিডনির দাম কত ২০২২

কিডনির দাম কত ২০২৩

বৃক্ক বা কিডনি (ইংরেজি: Kidney):- মেরুদণ্ডী প্রাণিদেহের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যা দেহের রেচন তন্ত্রের প্রধান অংশ। এর প্রধান কাজ রক্ত ছেঁকে বর্জ্য পদার্থ (যেমন ইউরিয়া) পৃথকীকরণ ও মূত্র উৎপাদন। মানব দেহের সমুদয় রক্ত দিনে প্রায় ৪০ বার বৃক্কের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়।

আপনার কৌতুহলী মনে কি কখনো প্রশ্ন জেগেছে যে, একটি কিডনির দাম কত এবং কিডনি কোথায় বিক্রি করা হয়?

যদি এ সকল প্রশ্নের উত্তর আপনার জানার ইচ্ছে জেগে থাকে তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

১. কিডনির দাম কতঃ-

মার্কিন গোয়েন্দা দপ্তর এফবিআই সূত্রে যে খবর এসেছে, তাতে মানবশরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের দাম বেশ চড়া এই বাজারে। সেই সব দাম যোগ করলে তা দাঁড়াবে প্রায় আড়াই কোটি টাকা অথ্যাৎ 22,270,000 টাকা ! kidneys cost about $262,000 each.

২. মৃত মানুষের কিডনি দাম 

কিডনির দাম কত : কালো বাজারে সবথেকে বেশি চাহিদা হয়ে থাকে কিডনির।

জীবিত মানুষের কিডনির দাম মোটামুটি হবে ২২,২৭০,০০০ টাকা। 

মৃত মানুষের কিডনি দাম হচ্ছে ১০,০৬,৪৪৬ টাকা 

মানব শরীরের আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের দাম সম্পর্কে আসুন জেনে আসি।

২. লিভার : 47,345,000 টাকা (লিভার আসে, যার মূল্য প্রায় $557,000)

৩. চোখ : ১,২৭,৫০০ টাকা। চোখের বল ($1,500 প্রতিটি)

৪. বোন ম্যারো : ১৫,৪৩,২১৮ টাকা।

৫. হৃৎপিণ্ড : ৭৯,৮৪,৪৭৭ টাকা। (আপনি যদি আইনত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আপনার হৃদয় বিক্রি করতে চান তবে এটি প্রায় 1 মিলিয়ন ডলারে কেনা যাবে)

৬. গল ব্লাডার : ৮১,৭৯০ টাকা

৭. ডিম্বাণু : মোটামুটি দাম ৮,৩৮,৭০৫ টাকা।

৮. রক্ত : ১,৬৭৭ – ২২,৮১২ টাকা।

৯. করোনারি আর্টারি : ১,০২,৩২২ টাকা

১০. ক্ষুদ্রান্ত্র : ১,৬৯,০১৫ টাকা।

১১. পাকস্থলী $500 (42,500 টাকা)

আশ্চর্যজনকভাবে, কালো বাজারে অঙ্গগুলি কম দামে দেওয়া হয়: উপরের দামের 10 শতাংশ – কিন্তু আপনি কখনই জানেন না যে এই শরীরের অঙ্গগুলি কোথা থেকে এসেছে। তবে কালো বাজারদের হাত থেকে দূরে থাকুন।

কিডনির দাম কত ২০২২
কিডনি

৩. কিডনি বিক্রি করা যায় কোথায়

 সারা পৃথিবীতেই কিডনি বিক্রির জন্য বৈধ বাজার বা বৈধ অফিস নেই। কারন, এটা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। ধরা পড়লে এর শাস্তি হবে ভয়াবহ। মূলত কিডনি বিক্রি হয়ে থাকে চোরাকারবারি সহ কালোবাজারি মার্কেটগুলোতে।  তবে আমাদের দেশ সহ আশেপাশের দেশগুলোতে কিডনি বিক্রির জন্য অনেক হাসপাতালে যোগাযোগ করলে পাওয়া যেতে পারে। হাসপাতালেও এসব করে থাকেন। বিভিন্ন মৃত মানুষের থেকে কিডনিসহ গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ রাখা হয় অন্য কোন জীবিত মানুষের শরীরে প্রতিস্থাপন করার জন্য।

কিডনি ট্রান্সফার কিংবা কিডনির দাম অনেক বেশি হওয়া সত্ত্বেও সাধারণ মানুষ যখন কিডনি বিক্রি করতে চায় তখন তাদের থেকে কম দামে কিডনি কিনে নেয়া হয়ে থাকে।  মূলত এ সকল কিডনি পরে চোরাকারবারি কালোবাজারি বাজারের মাধ্যমে চড়া মূল্যে বিক্রি করা হয়।

৪. জীবিত মানুষের কিডনির দাম 

মোটামুটি ২,২২,৭০,০০০ টাকা।। আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার কোন মন্তব্য থাকলে কমেন্ট করে জানিয়ে দিন, আমাদের আজকের আর্টিকেলটিতে কিডনি বিক্রি দাম 2021 এর তথ্য দেয়া হয়েছে। 

সুতারাং এই মূল্যের কিছু হেরফর হতে পারে। বর্তমান সময়ের সঠিক মূল্য আপনার জানা থাকলে কমেন্ট করে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

If you could harvest every organ and chemical in your body, you could make a $45 million. অথ্যাৎ আপনি যদি আপনার শরীরের প্রতিটি অঙ্গ এবং রাসায়নিক সংগ্রহ করতে পারেন তবে আপনি $ 45 মিলিয়ন উপার্জন করতে পারেন।

সুত্র : medicalfuturist.com

৬. শেষ কথাঃ সবশেষে আমরা বলবো, এখানে শুধু তথ্য তুলে ধরা হয়েছে, কেমন দাম হতে পারে আমাদের অঙ্গের। এর মানে এই নয় যে আমরা কিডনি বিক্রি  করতে বলছি বা কোথা কিডনি বিক্রি করা হয় সেসব জানি। তাই সবার কাছে অনুরোধ থাকবে, কিডনি বিক্রি করা থেকে বিরত থাকুন! এসব আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।  সবার সুস্থ কামনা আশা করছি।

এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *